মেসেঞ্জারে হতবাক করার মত কিছু ফিচার!

গবেষণায় দেখা গেছে আমাদের দেশের এস এস সি এবং এইচ এস সি লেভেলের অধিকাংশ শিক্ষার্থীই প্রতিদিন গড়ে প্রায় ১৫০ মিনিট ফেইসবুক-মেসেঞ্জার চালায়। কিন্তু অনেকেই জানে না এর সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে। যদি এর সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে সবাই জানতো তাহলে এই ফেসবুক বা মেসেঞ্জারই হত সকলের একজন অন্যতম প্রকৃত বন্ধু।
তাছাড়া ব্যস্ত এই সময় কে মেসেঞ্জারের মাধ্যমে অনেকেই করেছে আরামদায়ক। যে কোন মূহুর্তে পৃথিবীর যে কোন স্থান থেকে যে কোন স্থানে নিমিষেই যোগাযোগ করা সম্ভব এই ফেসবুক মেসেঞ্জারের মাধ্যমে। আলাপচারিতা থেকে ঝগড়া বিবাদ সব এখন ফেইসবুক-মেসেঞ্জারে।
ফেইসবুক মেসেঞ্জার যেন হয় আপনার প্রিয় বন্ধু তাই এর কয়েকটি উপকারী দিক আপনাদের মাঝে তুলে ধরলাম।

ইমোশন প্রকাশে অতুলনীয় ব্যবহার ইমোজীর

আমরা বন্ধুবান্ধবের সাথে যখন কথা বলি বা কোন বড় ভাইয়া বা আপুর সাথে কথা বলি তখন কথা বলার সময় আমাদের নানা ধরনের অনুভূতি কাজ করে। কখনো অভিমান কখনো হাসি আবার কখনো বা রাগ। মেসেজে কথা বলার সময় এ অনুভূতিগুলো অনেক সময় প্রকাশই পায় না। আর তাই মেসেঞ্জার ব্যবহার করে সবার কাছে ছড়িয়ে দিন আপনার অনুভূতিগুলো।

আপনার গুরুত্বপূর্ণ ফাইল সংরক্ষন করুন নিজের ইনবক্সে

মেসেঞ্জার এর এই ফিচারটি চমকপ্রদ একটি ফিচার। আপনার গুরুত্বপূর্ণ যে কোন ফাইল বা ডকুমেন্টন আপনার নিজেকেই মেসেজ করুন। এবং প্রয়োজনে ডাউনলোড করে নিন। যেমন ধরুন আগামীকাল আপনার প্রেজেন্টেশন। আর আজকে আপনি আপনার প্রয়োজনীয় ফাইল গুলো মেসেঞ্জার এর এই ফিচার ব্যবহার করে নিজেকেই মেসেজ করে রাখুন। পরবর্তীতে প্রয়োজনে নিজের ইনবক্স থেকেই ডাউনলোড করুন।

আপনার প্লান রিমাইন্ডার এখন মেসেঞ্জার

মেসেঞ্জারে কথা বলতে বলতেই আপনার ঠিক করে নিলেন আপনার আগামী মাসে কিংবা ১০-১২ দিন পরে বেড়াতে যাবেন বা কোন গুরুত্বপূর্ণ মিটিং আছে আপনর। আপনার মস্তিষ্ক ভূলে গেলেও ভূলবে না এখন তা মেসেঞ্জার। দ্রুত মেসেজে সেট করে দিন আপনার শিডিউল প্লান। সঠিক সময়ে জানিয়ে দিবে আপনাকে ফেসবুক-মেসেঞ্জার।

বের করে ফেলুন বন্ধুর লোকেশন

আমরা সবসময় সব ক্ষেত্রে দেরী করতে পছন্দ করি। এবং অনেকেই দেরী করেও মিথ্যে বলে থাকি। অনেক সময় দেখা যায় যে ঘুম থেকে উঠলাম মাত্র আর বন্ধুকে বলছি যে ২ মিনিটের মধ্যে পৌঁছে যাবো। তাই এই সমস্যা দুর করতে মেসেঞ্জারের লোকেশন ব্যবহার করে জানুন আপনার বন্ধুর লোকেশন। আর মিথ্যে বলতে কেউ পারবে না। সাথেই ধরে ফেলুন তাকে।

পোলের মাধ্যমেই নিন সিদ্ধান্ত

চ্যাট গ্রুপে কথা বলছেন নিশ্চয়ই আপনার পার্টানর ব্যবসার নাম কি দিবেন? অনেকের মধ্যে চলছে নাম নিয়ে দ্বন্দ। আর চিন্তা নয়। মেসেঞ্জার “পোল” ফিচারটি ব্যবহারের মাধ্যমে নিয়ে নিন এর সমাধান। সম্ভাব্য নামগুলি দিয়ে তৈরী করুন পোল আর ঠিক করুন সবার মতামতের উপর ভিত্তি করে নাম।

ভূল লেখার সংশোধনে মেসেঞ্জার

আমরা তাড়াতাড়ি করতে গিয়ে অনেক কাজই ভূল করে বসি। তাড়াহুড়ো করে মেসেজ করতে গিয়ে যদি কোন ভূল হয়ে থাকে তবে ‘*’ চিহ্ন ব্যবহার করে সংশোধন করে দিন আপনার করা ভূল বানানটির।


নিয়মিত ব্যবহার করা এই মেসেঞ্জারের এত দুর্দান্ত ফিচারগুলোর যথার্থ ব্যবহারে জীবন হয়ে উঠুক আরও সহজ আর স্মার্ট!

Facebook Comments

পোষ্টটি আপনার কত ভালো লেগেছে?

তারকা চিহ্নে ক্লিক করুন

রেটিং গড়ঃ / 5. ভোট সংখ্যাঃ

As you found this post useful...

Follow us on social media!

We are sorry that this post was not useful for you!

Let us improve this post!

আরও দেখুন